বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে দেশকে জিম্মি করার বিধ্বংসী পরিকল্পনায় তারেক!

0
308

নিউজ ডেস্ক : উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে রুখে দিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে তুলে ধরতে লন্ডনে বসে একাধিক বিধ্বংসী পরিকল্পনা করছেন বিএনপি নেতা তারেক রহমান। নতুন করে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা ও রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশে অস্থিরতা ছড়িয়ে দিতে মাস্টারপ্ল্যান করছেন লন্ডনে পলাতক বিএনপির এই নেতা। বাংলাদেশ বিরোধী কুচক্রী মহলের সহায়তা পেলে তারেকের নির্দেশে বিএনপি-জামায়াত নেতারা মাঠে নেমে পড়বেন। তারেকের বার্তায় ঈদের পূর্বে বেতন বৃদ্ধির নামে শ্রমিক অসন্তোষ, পরিবহন সেক্টরে বিশৃঙ্খলা, আই এস এর হামলার হুমকির নামে রাজনীতিতে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে বেগম জিয়ার মুক্তিতে সরকারকে বাধ্য করতে বিধ্বংসী এই মিশনে নামবে বিএনপি-জামায়াত। লন্ডনের কিংস্টন এলাকার একজন বাঙালি কমিউনিটির নেতার মাধ্যমে বিএনপি-জামায়াতের দেশ বিরোধী এমন মিশনের ব্যাপারে অবগত হওয়া গেছে। লন্ডনের কিংস্টন এলাকার বাঙালি কমিউনিটি নেতা আব্দুল মজিদ তালুকদারের মারফতে জানা যায়, ১০ মে শুক্রবার রাতে তারেক স্থানীয় বিএনপি নেতাদের নিয়ে স্থানীয় কিং প্যালেস হোটেলে ইফতার পরবর্তী গোপন বৈঠক কালে এমন ষড়যন্ত্রের বিষয়ে আলোচনা হয় ।
মজিদ বলেন, উক্ত হোটেলে একটি অনুষ্ঠানে আমিও উপস্থিত ছিলাম। তারেক রহমানকে দেখে আমি গোপনে তাদের কথাবার্তা শুনে হতবাক হয়েছি। জানতে পারলাম, সরকারকে দেশে ও বিদেশে চাপে রাখতে নতুন করে জঙ্গি হামলা, চোরাগোপ্তা হামলা, শ্রমিক অসন্তোষ, পরিবহন খাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পরিকল্পনা রয়েছে বিএনপির। এই পরিকল্পনা বিএনপির বিদেশি মিত্রদের সহায়তা চেয়েছেন তারেক। তিনি আরো বলেন, শুনেছি-বেগম জিয়াকে ঈদের আগে মুক্ত করতে শেষ চেষ্টাটুকু করতে চান তারেক। সেজন্য ঢাকায় তিনজন সিনিয়র নেতাকেও জানানো হয়েছে। ঐসব নেতারা অর্থ, অস্ত্র যোগানের পাশাপাশি রাজনৈতিক উসকানিও দিবেন। সুযোগ বুঝে বিএনপি-জামায়াতের নেতা-কর্মীরা বিশৃঙ্খলাকারীদের সঙ্গে মাঠে নেমে দেশকে অচল করে দিবেন। তাতে সরকারের উপর দেশি ও আন্তর্জাতিক চাপ বাড়বে এবং সরকার বাধ্য হয়ে বেগম জিয়াকে মুক্তি দিবে। আব্দুল মজিদ তাই বাংলাদেশের দেশপ্রেমিক জনতাকে বিএনপি-জামায়াতের নোংরা রাজনীতির বিষয়ে সচেতন থাকার জন্য অনুরোধ করেছেন। ঘৃণ্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্য পূরণে দেশবাসীকে জিম্মি করার পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেয়ার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here