ঈশ্বরদীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৭ মামলার আসামি নিহত

0
316

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি: পাবনার ঈশ্বরদীতে পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হাফিজুর রহমান তিতাস (৩৩) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার সাঁড়া ঝাউদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের দাবি- নিহত হাফিজুর রহমান তিতাস মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ ১৭টি মামলা রয়েছে। বন্দুকযুদ্ধে পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়েছেন। নিহত হাফিজুর রহমান তিতাস উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়া বাশেরবাঁদা গ্রামের মৃত আজিজ মোল্লার ছেলে। ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জহুরুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ জানায়, গভীর রাতে সাঁড়া ঝাউদিয়া এলাকার একটি মাঠে মাদক ব্যবসায়ীরা মাদক ভাগাভাগি করছে- এমন খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে প্রথমে পুলিশের ওপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও পরে গুলি চালায় মাদক ব্যবসায়ীরা। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাফিজুর রহমানকে উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, বন্দুকযুদ্ধে আহত পুলিশ সদস্যদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি রিভলবার ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত হাফিজুর রহমানের নামে বিস্ফোরক ও মাদকসহ ১৭টি মামলা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here