‘আবার মুক্ত আকাশে উড়ে গেল সবুজ টিয়াপাখিগুলো’

0
36

পিপ : পাবনায় প্রকাশ্যে বিক্রয় নিষিদ্ধ দেশীয় প্রজাতির টিয়া পাখি বিক্রিরত অবস্থায় এক ব্যক্তিকে আটক করে পাখি গুলোকে অবমুক্ত করেছে জেলা প্রশাসন। শুক্রবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে পাখিগুলোকে খাঁচা থেকে বের করে মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করেন জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ। সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন জানান, শহরের সোনাপট্টি এলাকায় মল্লিক বেদে নামে এক আদিবাসী ব্যক্তিকে বিক্রয় নিষিদ্ধ টিয়াপাখি বিক্রি করতে দেখে আটক করে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ ভিত্তিক সংগঠন নেচার এন্ড ওয়াইল্ড লাইফ কনজারভেশন কমিউনিটির (ঘডঈঈ) সদস্যরা। তাদের কাছ থেকে খবর পেয়ে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদলত পাখিগুলো নিজ হেফাজতে নিয়ে বিক্রেতা আশি মল্লিককে আটক করে। এ সময় আশি মল্লিক নিজের দারিদ্রতার বিষয়টি তুলে ধরে ভবিষ্যতে আর কখনোই দেশীয় বিক্রয় নিষিদ্ধ পাখি বিক্রি করবে না শপথ করে জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন। জেলা প্রশাসক বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নগদ এক হাজার টাকা দিয়ে পাখি গুলো কিনে মুক্ত বাতাসে অবমুক্ত করে দেন। নেচার এন্ড ওয়াইল্ড লাইফ কনজারভেশন কমিউনিটির (ঘডঈঈ) সভাপতি এহসান বিশ^াস লিঠু সমকাল‘কে বলেন, প্রচলিত আইনে নিষিদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও পাবনাসহ সারা দেশে প্রকাশ্যে বন্য প্রাণী ও পাখি বিক্রি হওয়ায় জীববৈচ্যিত্র হুমকীতে পড়ছে। বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে দেশীয় প্রজাতির অনেক পাখি । কেবল প্রশাসনের দিকে তাকিয়ে না থেকে পরিবেশ বাঁচাতে ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। টিয়া পাখি গুলো অবমুক্ত করতে উদ্যোগ নেয়ায় আমরা জেলা প্রশাসকের প্রতি কৃতজ্ঞ। পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ বলেন, নেচার এন্ড ওয়াইল্ড লাইফ কনজারভেশন কমিউনিটির (ঘডঈঈ)  সদস্যরা প্রশাসনের সাহায্য চাইলে আমরা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়ে পাখিগুলো অবমুক্ত করেছি। এভাবে সবাই সচেতন হলে বন্যপ্রাণী ও দেশীয় প্রজাতির পাখিকে বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here